কম্পিউটার

ল্যাপটপ নাকি ডেস্কটপ কোনটি ভালো হবে?

ল্যাপটপ নাকি ডেস্কটপ কোনটি ভালো হবে? এটা বলা কঠিন যদি না আপনার ব্যাবহারের উদ্দেশ্য জানা যায়। 

 

কম্পিউটার কেনার আগেই আপনাকে নিশ্চিত হয়ে নিতে হবে আপনার জন্য কোনটি ভালো হবে। নয়তো একগাদা টাকা নষ্ট করা হবে। ঠিক কম্পিউটার বেছে না নেবার কারনে ক্লাইন্টের কাজ ডেলিভারি দিতে দেরি হতে পারে।

 

যেখানে ডেস্কটপ আপনাকে শক্তিশালী বা বড় কাজগুলো অনায়েসে করার সুফলতা দিবে। সেখানে ল্যাপটপ আপনাকে স্থানান্তর করার ফ্লেক্সিবিলিটি দিবে। 

 

সুতরাং বলা যায় ২টার যথেষ্ঠ সুযোগ সুবিধা রয়েছে।

 

তবে এখন ল্যাপটপ নির্মাতারাও পাতলা এবং হালকা ল্যাপটপগুলিতে ডেস্কটপের পারফরমেন্স দাবি করে। তাই এটি আরো ভালোভাবে বিবেচনা করা প্রয়োজন।

 

তাদের দাবির আসলেও কোনো কারণ আছে কি? চলুন খুজে বের করার চেষ্টা করি। 

 

ল্যাপটপ কি অনেক ভারি কাজগুলো করতে পারে?

 

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এটার উত্তর সরাসরি না। 

 একটি কাস্টম ডেস্কটপ আপনার কাজের গতিকে আরো দ্রুত করতে সাহায্য করে। এটি শুধুমাত্র যে আপনার কাজই দ্রুত করে তা না। বরং এর অর্থ হতে পারে আপনার কাজ এক সপ্তাহের পরিবর্তে একদিনেই শেষ।

২০২৪ সালে কম্পিউটার ভিত্তিক কাজের সম্ভাবন

মোটামুটি আমরা সকলেই জানি যে, করোনার মহামারি সময়ে আমাদের দৈনন্দিন কাজের ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে। 

 

যেখানে একজন ম্যানেজার ঢাকা থেকে বিমানে করে চট্রগ্রাম বা কক্সবাজার যেত মিটিং এর কাজে। আবার মিটিং শেষ করে বিকেলে ঢাকায় ফেরত আসতো। সেখানে করোনা সময়কালিন সময় থেকে অনলাইনেই মিটিং শেষ করে ফেলতে পারছে।

আবার দেখা গেছে কিছু অফিস সপ্তাহের কিছুদিন ফিজিক্যাল অফিস ছিলো। বাকি কিছুদিন কর্মিদের বাসাতেই অনলাইনে কাজের সুযোগ তৈরি করা দিছে। 

 

এগুলি সবই সম্ভব হয়েছে প্রযুক্তির ফলে, আর এসব ক্ষেত্রে আইটি পারসনদের ক্রিয়েটিভ কাজগুলো বেশি গুরুপূর্ণ ছিলো।

 

আপনি যদি শুধুমাত্র অফিস বা বাসাতেই কাজ করেন, এটা খুব ভালো। ডেস্কটপ আপনার জন্য বেস্ট চয়েস হবে। 

 

কিন্তু যারা কাজের জন্যদূরবর্তী যায়গায় নিয়মিত যাতায়াত করে তাদের কি হবে

 

ডেক্সটপের এত সরঞ্জাম নিয়ে একস্থান থেকে অন্য স্থানে যাওয়াটা খুবই বিরক্তকর হতে পারে। 

 

যেখানে একজন ব্যাক্তি অফিসের একটা ফাইল নিয়ে যেতে বিরক্তবোধ করে। এই ক্ষেত্রে ডেস্কটপ বেছে নেওয়া আপনার জন্য সময় নষ্ট করবে এবং বিরক্তির কারণ হবে।

 

 

ল্যাপটপ আপনাকে এই ঝামেলা থেকে মুক্তি দিতে পারে। আপনি যেখানেই থাকুন না কেন আপনি যেখান থেকে ল্যাপটপ বন্ধ করছেন সেখান থেকেই কাজের জন্য এটি প্রস্তুত।

ল্যাপটপ বনাম ডেস্কটপ প্রসেসরের তুলনা

laptop-vs-desktop-processor

আপনি উপরের ছবি থেকে সহজেই অনুমান করতে পারছেন যে ল্যাপটপ নাকি ডেস্কটপ কোনটি ভালো হবে। এখানে ASUS ProtArt Studiobbok 16 ল্যাপটপে Ryzen 9 5900HX প্রসেসরটি সিঙ্গেল কোর খুবই কাছাকাছি পারফরমেন্স করছে।

 

কিন্তু আপনি যদি মাল্টিকোর এর পারফরমেন্স দেখেন তবে এটা মোটেও কাছাকাছি নেই। এক্ষেত্রে ডেস্কটপ কম্পিউটার অনেকটা এগিয়ে।

 

এমনকি বর্তমান টপ টায়ার ল্যাপটপ চিপগুলিও পুরানো ডেস্কটপ এর সাথে পেরে উঠেনা। চাইলে দেখে নিতে পারেন Ryzen 7 3800X July 2019

 

আপনি যদি উন্নতমানের সিঙ্গেল কোর পারফরমেন্স নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে পারেন তবে আপনার জন্য ল্যাপটপ নেওয়াই ভালো হবে। 

 

অন্যদিকে আপনি যদি সিঙ্গেল কোর মাল্টি কোরদুদিকেই সমান গুরুত্ব দেন এবং ভারি কাজ করার ইচ্ছা থাকে তবে ডেস্কটপ নেওয়াই ভালো হবে।

ল্যাপটপ বনাম ডেস্কটপ জিপিইউ এর তুলনা

ইন্টেল এবং এএমডি ল্যাপটপ প্রসেসর এর মত Nvidia ল্যাপটপ জিপিইউগুলোও ডেস্কটপ এর মত পারফরম্যান্স প্রদান করে থাকে।

 

তবুও দেখা যায় একটি ল্যাপটপ RTX 3070 থেকে একটি ডেস্কটপ RTX 3070 বেশি পারফরম্যান্স পাওয়া যায়।

laptop vs desktop gpu performance

গেমিং এর ক্ষেত্রে ল্যাপটপ নাকি ডেস্কটপ কোনটি ভালো হবে?

যদিও এখন অনেক কোম্পানি তাদের ল্যাপটপে ডেক্সটপের সমান পারফরমেন্স দাবী করে তারপরও পারফরমেন্স এর দিক দিয়ে ডেক্সটপকে পেছনে ফেলবে এমন ল্যাপটপ খুবই কম আছে।

 

আবার ডেক্সটপের সমান পারফরমেন্স যদি আপনি ল্যাপটপে পেতে চান তবে তার মূল্যও অনেক বেশি পড়ে যাবে।

গেম খেলাকে যদি আপনি আরো উপভোগ্য করতে চান সেক্ষেত্রে আপনার একটি ভালো মানের মনিটর লাগবে।

আপনি যদি এক্সটারনার মনিটর লাগান তাহলে আপনাকে কিবোর্ড মাউস লাগাতে হবে। সেক্ষেত্রে দেখা যাবে প্রায় ডেক্সটপের মতই ওয়ার্কস্টেসন তৈরি হয়ে যাবে। সুতরাং এক্ষেত্রে ডেক্সটপ আপনার বেস্ট চয়েস হবে আশা করি।

 

ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য ল্যাপটপ নাকি ডেস্কটপ কোনটি ভালো হবে

যারা ফ্রিল্যান্সিং কাজের দিকে অগ্রসর হয় তাদের কাছ থেকে প্রায়শই শোনা যায় যে ল্যাপটপ নাকি ডেস্কটপ কোনটি ভালো হবেএক্ষেত্রেও আমি আগের মতই বলবো যে এটাও আপনার কাজের উপর নির্ভর করছে। 

 

কেননা ফ্রিল্যান্সিং  তো সবাই একই কাজ করেনা। সবার কাজেরই ভিন্নতা আছে। যেমন কেউ গ্রাফিক্স নিয়ে কাজ করে কেউ ওয়েব ডিজাইন নিয়ে কাজ করে ইত্যাদি।

 

আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিংয়ে কাজ করার জন্য ভারী ভারী সফটওয়ার ব্যাবহার করে থাকেন যেমন– গ্রাফিক্স ডিজাইনের সফটওয়ারভিডিও এডিটিং এর সফটওয়ার অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট এর সফটওয়ার। 

এসব সফটওয়ার যদি ব্যাবহার করে থাকেন তবে আমি বলবো আপনি ডেক্সটপ  কিনে ফেলুন। 

 

আর যদি আপনার কাজ হয় কন্টেন্ট রাইটিংডাটা এন্ট্রিওয়েব ডিজাইনওয়েব ডেভেলপমেন্ট বা ডিজিটাল মার্কেটিং টাইপের তাহলে এক্ষেত্রে আপনার জন্য ল্যাপটপ ভালো চয়েস হতে পারে।

 

 

এছাড়াও আপনার এলাকায় যদি অত্যাধিক পরিমাণে লোডশোডিং হয় সেক্ষেত্রেও ল্যাপটপের বিষয়টা বিবেচনায় আনা উচিত।

মূল্যের দিক দিয়ে ল্যাপটপ এবং ডেক্সটপ

ডেক্সটপ এবং ল্যাপটপের মূল্যের কথা যদি চিন্তা করি তবে অবশ্যই ডেক্সটপ এগিয়ে থাকবে। যেসব কারণে মানুষ ডেক্সটপ এর দিকে ধাবিত হয় তার মধ্যে অন্যতম কারণ হলো এর মূল্য।

 

আপনি যে মূল্য দিয়ে একটি মোটামুটি মানের ল্যাপটপ কিনবেন সেই একই মূ্ল্য দিয়ে আপনি খুব ভালো মানের একটি ডেক্সটপ নিতে পারবেন। 

প্রয়োজনে আপনি Ryans অথবা Star Tech ওয়েবসাইট ২টি ভিজিট করে বর্তমান মূল্য যাচাই করে দেখতে পারেন।

 

আপনার বাজেট যদি একটু কম হয় কিন্তু পারফরমেন্স যদি বেশি দরকার হয় তবে সেক্ষেত্রে ডেক্সটপ ভালো চয়েস হতে পারে। 

 

এছাড়াও সার্ভিসিং এর ক্ষেত্রেও আপনি ভালো সুবিধা পাবেন ল্যাপটপের চেয়ে।

আপনার কি ল্যাপটপ কেনা উচিত নাকি ডেস্কটপ 

 

দেখা যায় যে কম্পিউটার গ্রাফিক্স, ভিডিও এডিটিং বা অন্যান্য ভারি কাজ যারা করে তাদের প্রথম পছন্দ থাকে একটি ডেস্কটপ ওয়ার্কস্কেটেশন তৈরি করা। 

ভারি ভারি কাজগুলো ডেস্কটপে করলে ফ্লেক্সিবিলিটি বেশি পাওয়া যায়।

 

যদিও আধুনিক ল্যাপটপ পিসিগুলো অনুরূপ পারফরমেন্স অফার করে। এরপরও দেখা যায় আমরা যত সহজে একটি ডেক্সটপ যত সহজে আপগ্রেট করতে পারি বা মেরামত করতে পারি এগুলো ল্যাপটপে এখনো এতটা ফ্লেক্সিবিলিটি পাওয়া যায়না।

 

ল্যাপটপ নাকি ডেক্সটপ

উপরের এই ছবি থেকে আপনার যা নেওয়া উচিত তা নিচে আলোচনা করা হলো:

যারা সবসময় ভ্রমনের মধ্যেই থাকেন এবং সেটা কম্পিউটারসহ বা কম্পিউটার সাথে থাকলে ভালো হয় তাদের জন্য ল্যাপটপ অপরিহার্য।

 

আপনার যদি কাজের জন্য নির্দিষ্ট কোন জায়গা নির্ধারণ করা না থাকে তবে আপনি ডেক্সটপ শ্রেণীর হার্ডওয়ারযুক্ত যেসব ল্যাপটপ পাওয়া যায় সেগুলো নিয়ে নিতে পারেন।

 

আপনার যদি কাজের জায়গাটি নির্দিষ্ট করা থাকে তবে একটি ডেক্সটপ নিয়ে নেওয়া উচিত হবে। এর সাথে চাইলে আপনি একটি পাওয়ারফুল সিপিইউসহ একটি হালকা পাতলা নোটবুক নিতে  পারেন। তবে এতে যদি বাজেটের সমস্যা না থাকে।

 

এটা এজন্য যে অফিসের কোন জরুরি কাজ বাসায় এসেও করা লাগতে পারে। তবে এক্ষেত্রে নোটবুকের কনফিগারেশনটা হাই হলেই ভালো হয় যেন আপনার কাজের চাপ নিতে পারে।

 

 

যদি আপনার কোন প্রকার ভ্রমনের দরকার না হয় তবে একটি ডেক্সটপ ওয়ার্কস্টেশন তৈরি করুন। এটা আপনাকে কাজের পারফরমেন্স বাড়াতে সাহায্য করবে।

আশা করি এই আর্টিকেল থেকে কিছুটা ধারণা পেয়েছেন ল্যাপটপ নাকি ডেস্কটপ কোনটি ভালো হবে? এই সম্পর্কে। আপনার যদি ডেক্সটপ বা ল্যাপটপ সম্পর্কে আরো কিছু জানার থাকে তবে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *