তথ্য প্রযুক্তি

স্মার্ট হোম কি? স্মার্ট হোম এর সুবিধাসমূহ

স্মার্ট হোম কি স্মার্ট হোম নাম শোনার পর হয়তো আপনি আইডিয়া করতে পারছেন যে এটা কেমন হতে পারে। কেননা আমরা বর্তমানে তথ্যপ্রযুক্তির যুগে এই স্মার্ট শব্দটার সাথে অনেক পরিচিত। 

 

আপনি নিশ্চয় স্মার্ট ঘড়ির কথা জেনে থাকবেন, সাধারণ ঘড়ি থেকে এই স্মার্ট ঘড়ির কতটা পার্থক্য। সাধারণ ঘড়ি যেখানে শুধুমাত্র সময় দেখার জন্য ব্যাবহার করা হতো সেখানে স্মার্ট ঘড়ি দিয়ে কত সুবিধাই না ভোগ করছি। 

 

একটা স্মার্ট ঘড়ি দিয়ে আমরা ফোনের কল রিসিভ করতে পারি, কথা বলতে পারি, হোয়াটসআপ এর মেসেজ সহ যেকোন নোটিফিকেশন দেখতে পারি, একদিনে কত স্টেপ হাটলাম তা দেখতে পারি, এমনকি হার্টবিটসহ অনেক ফিচার ব্যাবহার করতে পারি। 

 

একইভাবে যদি আমরা একটি বাড়ির কথা কল্পনা করি সেখানেও এমন কিছু হবে যেটি আমাদের জীবনকে আরো সহজতর করে তুলবে। সেইসাথে বাড়িটির মধ্যে অনেকধরনের আধুনিক সুযোগ সুবিধা থাকবে। 

 

এখন চলুন স্মার্ট হোম কি এই বিষয়েই একটু জানার চেষ্টা করি। স্মার্ট হোম হলো এমন একটি বাড়ি যা বিভিন্ন আধুনিক সব ডিভাইস দ্বারা সজ্জিত এবং এগুলিকে একটি মোবাইল বা কম্পিউটার দ্বারা যে কোন স্থান থেকে নিয়ন্ত্রণ  করা যায়। 

 

উদাহরণস্বরূপ বলা যায় যে এমন একটি বাড়ি যে বাড়ির লাইট, ফ্যান, দরজা, জানালা, নিরাপত্তা সবকিছুই একটি মাত্র রিমোট দিয়েই নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

 

 

স্মার্ট ডিভাইসসমূহ

নিচে কমন কিছু সাধারণ স্মার্ট ডিভাইসের নাম উল্লেখ করা হলো:

 

1.   হিটিং

2.   পাওয়ার কন্ট্রোল

3.   এনারজি মনিটরস

4.   হোম এন্টারটেইনমেন্ট সিস্টেম

5.   রেফ্রিজারেটর

6.   সুরক্ষা সিস্টেম

7.   ওভেন

8.   আলোকসজ্জার ডিভাইস

9.   ক্যামেরা

10.               অডিও ভিডিও সিস্টেম

11.               ওয়াশিং মেশিন


স্মার্ট হোম এর জন্য আপনার যা দরকার তা হলো একটি স্মার্ট হোম, একটি ভালো মানের নির্ভরযোগ্য ইন্টারনেট সংযোগ এবং কিছু স্মার্ট ডিভাইস এগুলি দিয়ে আপনি অটোমেশনের কাজ শুরু করে দিতে পারেন।

 

আপনি চাইলে বাসা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য আপনার ভয়েসও ব্যাবহার করতে পারেন এমনকি আপনি সেখানে না থাকলে এটা কাজ করবে। 

 

২০০৩ সালে UK Department of Trade and Industry তারা যেভাবে স্মার্ট হোমকে সজ্ঞায়িত করে তা হলো:

 

এমন একটি বাসস্থান যেখানে একটি কমিউনিকেশন নেটওয়ার্কে অন্তর্ভুক্ত করে ইলেক্ট্রিক্যাল যন্ত্রপাতি এবং সার্ভিসগুলিকে সংযুক্ত করে, এবং এদের রিমোটলি নিয়ন্ত্রন, নিরীক্ষণ বা অ্যাক্সেস করার অনুমতি দেয়।

 

 

একটি স্মার্ট হোম এর কাজ কি

স্মার্ট হোমগুলি হোম অটোমেশন প্রযুক্তি ব্যাবহার করে বাড়ির মালিকদের মনিটরিংয়ের মাধ্যমে বাড়ির বিভিন্ন তথ্য, ফিডব্যাক এবং নিয়ন্ত্রণ প্রদান করে থাকে। 

 

এমনকি বাড়ির মালিক যদি বাড়িতে নাও থাকে তবে এটি সয়ংক্রিয়ভাবে বিড়ালকে খাওয়ানোে এবং বাড়ির গাছগুলিতে জল দেবার মত কাজগুলি করতে পারে। 

 

স্মার্ট টেকনোলজি আমাদের জীবনযাত্রার মান কাজ করার পদ্ধতিকে উন্নত করে সেই সাথে এনার্জি সেভিং সিস্টেমটাকেও উন্নত করে। আপনি চেক করতে পারবেন আপনার সামনের দরজার ওপাশে কে আছে, জানালা বন্ধ করতে পারবেন, লাইট এবং পর্দা অপারেট করতে পারবেন। 

 

 

এছাড়া বিশ্বের যেকোন জায়গা থেকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে চেক করতে পারবেন আপনার বাসায় কি পরিমান শক্তি উৎপন্ন হচ্ছে এবং ব্যবহার হচ্ছে।

 

স্মার্ট হোম টেকনোলোজির সুবিধাসমূহ

স্মার্ট হোমের অনেক অনেক সুবিধা রয়েছে। স্মার্ট হোম কি এর এই পর্যায়ে এখন কিছু সুবিধা নিয়ে আলোচনা করবো। 

 

রিমোট মনিটরিং: স্মার্ট হোমের একটি বড় সুবিধা হলো এর মাধ্যমে রিয়েল টাইম মনিটরিং করা যায়। আপনি যদি বাড়ির বাইরেও থাকেন তারপরেও মোবাইল বা কম্পিউটারের মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেতে পারেন এর মাধ্যমে আপনার বাসার নিরাপত্তাও বৃদ্ধি পায়। 

 

ইন্টারকানেকটিভিটি: সংযোগকারি ডিভাইসগুলির মধ্যে তাদের কার্যকারিতা বৃদ্ধি করতে এবং সমন্বিত ফলাফল প্রদানের জন্য তাদের একসাথে কাজ করতে সক্ষম করে। 

 

নিরাপত্তা: প্রতিটি বাড়ির জন্য যেটি সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ সেটি হলো বাড়ির নিরাপত্তা। স্মার্ট হোমের মাধ্যমে বাড়ির নিরাপত্তাও জোরদার করা যায়। বাড়িতে যদি অনাকাঙ্খিত কিছু ঘটে তবে স্মার্ট ডিভাইস অটোমেটিকভাবে অ্যালার্ট করতে পারে। এতে বাড়ির নিরাপত্তা জোরদার হয়। 

 

মোশন ডিটেকশন: মোশন সক্রিয় করার মাধ্যমে সময়ব্যাটারির আয়ু, মেমরি, স্টোরেজ এবং এনার্জি বাচায়। 

 

এনার্জি সেভিং: স্মার্ট ডিভাইসগুলি ব্যবহারকারীদের বাড়ির এনার্জি ব্যাবহার এবং পুনর্নবীকরণযোগ্য থেকে প্রোডাকশন সম্পর্কে জানাতে পারে। এছাড়াও দক্ষতা বাড়াতে, কার্বন নিঃসরণ এবং খরচ কমাতে সাহায্য করে। 

 

কাস্টমাইজেশন: স্মার্ট ডিভাইসগুলি বাড়ির মালিকদের পছন্দ অনুযায়ী ডিজাইন করা যেতে পারে যাতে করে একটি ফোনের মাধ্যমেই একক ট্যাপ করে একাধিক সেটিং সক্রিয় করা যায়। 

 

 

ইন্টেলিজেন্ট কন্ট্রোল: স্মার্ট ডিভাইসগুলিকে আপনি বিভিন্নভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। আপনি ভয়েস দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করার পাশাপাশি স্পেশিফিক কন্ডিশন সেট করে দিতে পারবেন।

স্মার্ট হোম কিভাবে কাজ করে

স্মার্ট হোমগুলি ব্যাবহারের জন্য ডেডিকেটেড ওয়্যারিংয়ের প্রয়োজন ছিলো কিন্তু আজকাল প্রায় সবই ওয়্যারলেস। সেক্ষেত্রে বেশিরভাগ ডিভাইসগুলিকেই ওয়াইফাইয়ের মাধ্যমে সংযুক্ত করা যেতে পারে। 

 

 সর্বাধিক সাধারণ প্রোটোকলগুলি ছিলো Z-Wave এবং Zigbee কিন্তু ওয়াইফাই এর বিস্তার, এবং ক্লাউড কম্পিউটিং এর পাওয়ার ভয়েস নিয়ন্ত্রণের মত ফিচারগুলি অ্যাক্সেস করার জন্য বাজারে ব্যাপক স্মার্ট প্রযুক্তি অ্যাভেইলেবল করেছে। 

 

যাইহোক, ওয়াইফাই এর সীমাবদ্ধতা ছাড়া নয়, এবং এর অনুরাগীরা Zigbee(60 ft range) অথবা Z-Wave(500 ft range) এর মত ডেডিকেটেড যোগাযোগ প্রোটোকলের বৈশিষ্ট্যগুলিকে প্রিফার করে। থ্রেড খুব শীঘ্রই মুক্তি পাবে।

 

এটি এখনও একটি পরিবারের নাম নাও হতে পারে কিন্তু থ্রেড অ্যাপল, গুগল, ন্যানোলিফ এবং ইভের মতো সংস্থাগুলির সাথে মোমেনটাম শুরু করেছে। 

থ্রেডস প্রযুক্তি হোম ইন্টারনেট সংযোগ বা ওয়াইফাই এর উপরই নির্ভরশীল নয়, এটি নিজস্ব ডেডিকেটেড মেশ নেটওয়ার্ক প্রদান করে। সুতরাং, একটি অ্যাক্সে পয়েন্টের সথে সংযুক্ত প্রতিটি ডিভাইসের পরিবর্তে, প্রতিটি থ্রেড এনাবল ডিভাইস একটি মিনিহাব হিসাবে কাজ করে। 

 

থ্রেড দ্রুত রেসপন্স সময় সহ বেশ কয়েকটি সুবিধা প্রদান করে। নির্ভরযোগ্যতার উন্নতি এবং নিরাপত্তার উন্নতি। থ্রেড সবসময় কম পাওয়ার ব্যাবহার করে কারণ থ্রেড দক্ষ IEEE 802.15.4 MAC/PHY প্রোটোকলের সুবিধা নেয় যা ওয়াইফাইয়ের চেয়ে বেশি কার্যকর। 

 

অ্যাপল হোমপড মিনি, গুগল নেস্ট হাব ম্যাক্স, ইভ এনার্জি এবং ইভ অ্যাকোয়া সহ বেশ কিছু ডিভাইস থ্রেড ক্ষমতা অন্তর্ভুক্ত করেছে। 

 

Zigbee, Z-Wave, Wi-Fi, এবং Bluetooh সবই স্মার্ট হোমের প্রথামিক প্রোটোকল হওয়ার চেষ্টা করেছে কিন্তু কেউ সফল হতে পারেনি। এক পর্যায়ে গিয়ে সবাই ব্যর্থ হয়েছে। 

 

কিন্তু কেউই পর্যাপ্ত আকর্ষণ অর্জন করতে পারেনি বা সফলতার জন্য যথেষ্ট ফ্লেক্সিবিলিটি অফার করতে পারেনি, এবং ঠিক এখানেই Matter আসে। 

 

Matter হলো ওপেন সোর্স কানেক্টিভিটি স্ট্যান্ডার্ড, যা ৪০০ টিরও বেশি কোম্পানি দ্বারা তৈরি। এটি থ্রেড, ওয়াইফাই, ব্লুটুথ সংযোগ করে এবং ইথারনেট আপনার সমস্ত স্মার্ট ডিভাইসকে স্থানীয়ভাবে একে অপরের সাথে যোগাযোগ করতে অ্যালাও করে কোন প্রকার ক্লাউড ছাড়াই। 

Matter কোরডিনেটেড হয়েছে Connectivity Standards Alliance দ্বারা যার মধ্যে রয়েছে Amazon, Apple, Google/Nest, Samsung, Wyze, Irobot, Signify সহ অন্যান্য শত শত প্রযুক্তি ব্র্যান্ড। আশা করা যায়এগুলো ব্যবহারযোগ্যতা এবং অ্যাক্সেসযোগ্যতা উন্নত করবে এবং আমাদের সমস্ত বাড়িকে আরোও স্মার্ট করে তুলবে।

 

 

পরিশেষে

আশা করি উপরের এই আর্টিকেল থেকে স্মার্ট হোম কি এই সম্পর্কে

মোটামুটি ভালো একটি একটা ধারণা পেয়েছেন। এরপরও যদি কোন কিছু জানার থাকে তবে আমাদের সাথে

যোগাযোগ করতে পারেন। আমরা সর্বাত্নক চেষ্টা করবো আপনাকে সাহায্য করার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *